বুধবার, ২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল | ১৭ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

উখিয়ায় সী-লাইন ও কক্স-লাইন পরিবহন অফিসে চাঁদার দাবীতে হামলা, প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন

ভাষান্তর: | বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी ဗမာစာ ဗမာစာ

নিজস্ব প্রতিবেদক,উখিয়া:: কক্সবাজারের আমজনতার প্রিয় পরিবহন সেবা প্রতিষ্ঠান “উখিয়া সী-লাইন ও কক্স-লাইন” কর্তৃপক্ষের নিকট এক লাখ টাকা চাঁদা দাবীতে উখিয়া সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ সংলগ্ন কাউন্টার দখল করার চেষ্টায় হামলা চালিয়েছে ভাংচুর করেছে,এমন অভিযোগ এনেছে উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাবের বিরুদ্ধে।২০ নভেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে উখিয়া প্রেসক্লাবে আয়োজিত জনাকীর্ণ এক সাংবাদিক সম্মেলনে এমন অভিযোগ এনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেছেন উখিয়া সী-লাইন ও কক্স-লাইন মালিক সমিতির সভাপতি এবং আরাকান সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন উখিয়াl উপজেলার সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ বাদশা।

লিখিত বক্তব্যে নুর মোহাম্মদ বাদশা বলেছেন, তাদের পরিচালিত সী-লাইন ও কক্স-লাইন পরিবহন পরিচালনা কমিটির সিদ্ধান্তক্রমে উখিয়ার জনৈক নুরুল আলম সওদাগর ও কাজী আকতার উদ্দিন টুনুর স্বত্বীয় এক খন্ড জায়গায় ৩ তিন বছরের জন্য চুক্তিপত্র সম্পাদনের মাধ্যমে লীজ নিয়ে কাউন্টার স্থাপন করি।উক্ত জায়গায় আমরা যথারীতি কাউন্টার থেকে পরিবহন সেবা দিয়ে আসছি।উক্ত জায়গা অনলাইন প্রেসক্লাবের দাবী করে জবর দখল চেষ্টা এবং প্রথমে ৫০ হাজার টাকা পরে ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে আসছিল উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাবের কর্মকর্তা পরিচয়ী উখিয়ার রাজাপালং ইউপির পূর্ব ডিগলিয়া পালং এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে যুবদল নেতা শফিক আজাদ(৩৫) (প্রকৃত পক্ষে শফিক আজাদ বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ৩ নং ঘুমধুম ইউপির ৮ নং ওয়ার্ডের ভোটার),উখিয়া সদরের মালভিটা পাড়ার মৃত আলী আহমদের ছেলে শহীদুল ইসলাম(৩৬),রত্নাপালং ইউপির জনৈক পলাশ বড়ুয়া( ৩৮) ও কোটবাজারের জনৈক শরীফ আজাদ(২৮) এর নেতৃত্বে ১০/১৫ জনের একদল দুস্কৃর্তকারী গত ১৮ নভেম্বর দিবাগত রাত অনুমান ৮ টার দিকে সী-লাইন ও কক্স-লাইন কাউন্টারের সাইনবোর্ড, চেয়ার,টেবিল ভাংচুর করে,প্রয়োজনীয় কাগজপত্র লুটে নিয়ে যায়।

তাঁরা ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করলে আমি(বাদশা) প্রত্যাখ্যান করাই এমন হামলা চালালে বাধা দিতে গেলে আমাদের পরিবহন চালক টিটু কে নির্দয় ভাবে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।এ বিষয়ে আমরা শ্রমিকগণ অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি -সাধারণ সম্পাদক পরিচয়ী দুস্কৃর্তকারীদের অব্যাহত হুমকির মুখে আছি।আমাদের গাড়ীর কাউন্টারে হামলা চালানোয় চালক এবং যাত্রীরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন।ফলে ব্যাপক আর্থিক লোকসানের মুখে পড়েছে উখিয়ার সী-লাইন ও কক্স-লাইন কর্তৃপক্ষ।

নুর মোহাম্মদ বাদশা আরো বলেন চাঁদা না পেয়ে অনলাইন প্রেসক্লাবের নাম ভাঙ্গিয়ে যেসব তান্ডব চালিয়েছে,তাঁর জন্য আমরা শংকিত।ঘটনায় জড়িত উল্ল্যেখিত ৪ জনের নামে আমরা উখিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।আমরা উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) উপর আস্থা রাখছি।আশা করি অভিযুক্ত ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনবেন।যদি এহেন গর্হিত কর্মকান্ডের বিচার না হয় আমরা শ্রমিক সংগঠন পরিবহন ধর্মঘট সহ কঠোর কর্মসুচী ঘোষণা করতে বাধ্য হবো,এমন হুসিয়ারী উচ্চারণ করেন। এ বিষয়ে উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আহমেদ সনজুর মোরশেদ বলেছেন একটি অভিযোগ দিয়েছে।তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।এ বিষয়ে উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিক আজাদের মুঠোফোনে (০১৮১৯৭৮৫৪৯৬) কল দিলে সংযোগ পাওয়া যায়নি,তাই বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

 

 

সাংবাদিক সম্মেলনে উখিয়া উপজেলা জ্বীপ,মাইক্রোবাস,মিনিবাস,চালক শ্রমিক পরিবহন সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহ আলম, সদস্য মোঃহোছাইন ভুলো, আরাকান সড়ক শ্রমিক ইউনিয়নের সদস্য নির্মল বড়ুয়া সহ অর্ধশতাধিক শ্রমিক, মালিক উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদিকদের মধ্যে উখিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি সরওয়ার আলম শাহীন, সাধারণ সম্পাদক কমরুদ্দিন মুকুল,সাবেক সভাপতি রফিক উদ্দিন বাবুল,এড. আবদূর রহিম,সাবেক সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির জুশান,রতন দে,সদস্য কাজী হুমায়ুন কবির বাচ্চু,নুরুল হক,জসিম চৌধুরী, শ.ম.গফুর,মাহমদুল হক বাবুল,ওবাইদুল হক চৌধুরী আবু,এম.ফেরদৌস প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *