শনিবার, ০৪ Jul ২০২০, ০৪:৫২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
চরলক্ষ্যার করোনা মোকাবিলা খাতে এক লক্ষ টাকা অনুদান দিলেন এমডি মনিরুল হক কক্সবাজার টুডে ডটকমে প্রকাশিত সংবাদের জোর প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা মাতারবাড়িতে জলবদ্ধতা নিরসনে ২০ ফুট ড্রেনের ব্যাবস্থা করলেন এস.এম.আবু হাইদার আবারো দীর্ঘ বিরোধ নিষ্পত্তি করে একের পর এক আস্থা অর্জন করছেন চেয়ারম্যান আবছার উখিয়ায় বিজিবি’র অভিযানে ৬০ হাজার পিস ইয়াবাসহ  রোহিঙ্গা পাচারকারী আটক ঘুমধুমের নুরুজ্জামান চকরিয়ায় মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদে ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে ৮০ লাখ টাকার বাজেট প্রস্তাব পেশ উখিয়া বালুখালীর ২ ভাই আবারো ইয়াবা বানিজ্যে ! ২ বাংলাদেশিকে নির্যাতনের পর রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে গেল বিএসএফ ভারতের সঙ্গে উত্তেজনায় পাকিস্তান সেনাদের জন্য হাসপাতাল ও রক্ত সংরক্ষণের চিঠি উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাব এর নতুন কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত টেকনাফে ২০ হাজার ইয়াবাসহ দুই উপজাতি আটক
রেড জোন চিহ্নিত, থাকবে সাধারণ ছুটি

রেড জোন চিহ্নিত, থাকবে সাধারণ ছুটি

চট্টলাবাংলা ডেস্ক ::

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দেশে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় আরো কিছু রেড জোন এলাকা চিহ্নিত করেছে। এসব এলাকার মানুষের ঘরে থাকা নিশ্চিত করতে সাধারণ ছুটির আওতায় আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

রোববার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আরো কিছু এলাকাকে রেড জোনের আওতায় আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেখানে পূর্ণাঙ্গ লকডাউন বাস্তবায়ন করতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ফলে সেসব এলাকার কেউ বাইরে বের হতে পারবেন না এবং বাইরে থেকে এলাকায় প্রবেশ করতে পারবেন না।

সাধারণ ছুটির বিষয়ে জানতে চাইলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন গণমাধ্যমকে জানান, মূলত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় রেড জোনের আরও কিছু এলাকা চিহ্নিত করেছে। সেখানে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাদের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেবে। আর সেসব এলাকার বাসিন্দাদের খাদ্যসহ সকল প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহের ব্যবস্থা নেয়া হবে। ধাপে ধাপে লকডাউন করা হবে।

‘রেড জোন’ চিহ্নিত এলাকা

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের একাধিক ওয়ার্ড এবং তিন জেলার বিভিন্ন এলাকাকে রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। করোনা প্রতিরোধে গঠিত কেন্দ্রীয় টেকনিক্যাল কমিটির শনিবারের সভায় এসব এলাকাকে চিহ্নিত করা হয়। সভার একটি কার্যবিবরণী থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

সভার সিদ্ধান্তে বলা হয়েছে, জেলার জেলা প্রশাসক, সিভিল সার্জন এবং পুলিশ সুপার মিলে এসব জোনের মধ্যে সুনির্দিষ্টভাবে লাল এলাকা চিহ্নিত করবেন।

ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটির মোট ৪৫টি এলাকাকে ‘রেড জোন’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা উত্তর সিটির ১৭ এবং দক্ষিণ সিটির ২৮টি এলাকা আছে। আর চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন এলাকার ১১টি এলাকা রেড জোনের মধ্যে পড়েছে।

ঢাকার বাইরে নরসিংদী, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর জেলার একাধিক উপজেলাকে রেড জোন চিহ্নিত করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সেন্ট্রাল টেকনিক্যাল গ্রুপের সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে বৈঠকের একটি সূত্র জানিয়েছে।

ঢাকা উত্তর সিটি

উত্তর সিটি করপোরেশনের যে ১৭ এলাকাকে রেড জোন হিসেবে ধরা হয়েছে সেগুলো হলো: গুলশান, বাড্ডা, ক্যান্টনমেন্ট, মহাখালী, তেজগাঁও, রামপুরা, আফতাবনগর, মোহাম্মদপুর, কল্যাণপুর, গুলশান, মগবাজার, এয়ারপোর্ট, বনশ্রী, রাজাবাজার, উত্তরা, মিরপুর।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি

দক্ষিণ সিটির ২৮টি এলাকার মধ্যে আছে: যাত্রাবাড়ী, ডেমরা, মুগদা, গেন্ডারিয়া, ধানমন্ডি, জিগাতলা, লালবাগ, আজিমপুর, বাসাবো, শান্তিনগর, পল্টন, কলাবাগান, রমনা, সূত্রাপুর, মালিবাগ, কোতোয়ালি, টিকাটুলি, মিটফোর্ড, শাহজাহানপুর, মতিঝিল, ওয়ারী, খিলগাঁও, পরিবাগ, কদমতলী, সিদ্ধেশ্বরী, লক্ষ্মীবাজার, এলিফ্যান্ট রোড, সেগুনবাগিচা।

চট্টগ্রাম সিটি

চট্টগ্রাম সিটির ১০ এলাকাকে রেড জোনের মধ্যে রাখা হয়েছে। সেগুলো হলো, চট্টগ্রাম বন্দরে ৩৭ ও ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড, পতেঙ্গার ৩৯ নম্বর ওয়ার্ড, পাহাড়তলির ১০ নম্বর ওয়ার্ড, কোতোয়ালির ১৬, ২০, ২১ ও ২২ নম্বর ওয়ার্ড, খুলশীর ১৪ নম্বর ওয়ার্ড, হালিশহর এলাকার ২৬ নম্বর ওয়ার্ড।

আরও তিন জেলা

ঢাকার বাইরের তিন জেলার মধ্যে গাজীপুরের সব কটি উপজেলাকে রেড জোনের আওতার মধ্যে আনা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার, রূপগঞ্জ, সদর এবং পুরো সিটি এলাকাকে রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

ঢাকার দুই সিটি ও চট্টগ্রামের যেসব এলাকায় প্রতি এক লাখ জনসংখ্যায় ১৪ দিনে ৬০ জন আক্রান্ত হয়েছে সেসব এলাকাকে রেড জোন চিহ্নিত করা হয়েছে। ঢাকার বাইরে এই অনুপাত লাখে ১০।

সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সাইটের কোন লিখা বিনা অনুমতিতে কপি করা আইনত অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে। সিটিবি নিউজ ২০১৮-১৯ সম্পাদক কতৃক সর্বস্বত্ত সংরক্ষিত, নিবন্ধনের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয়ে আবেদিত।
Desing & Developed BY MONTAKIM