শনিবার, ১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল | ১০ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

“ঘুমধুমে ভাড়া নেওয়া জায়গা গোপনে বিক্রির পাঁয়তারা” শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

ভাষান্তর: | বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी ဗမာစာ ဗမာစာ

গত ১৩ অক্টোবর ২০২১ইং বুধবার অনলাইন নিউজ পোর্টাল কক্স টাইমস ২৪ ডটকম ও কক্স মর্নিং এ “ঘুমধুমে ভাড়া নেওয়া জায়গা গোপনে বিক্রির পাঁয়তারা” শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে।

প্রকাশিত সংবাদটিতে ঘুমধুম ইউনিয়নের বেতবুনিয়ায় আমি ভাড়া নেওয়া জোত জায়গার মাথাকিলা গোপনে ক্রয় করে ঘর নির্মাণ করছি বলে উল্লেখ করা হয়! এমন অভিযোগ ভিত্তিহীন।

আমি গত ১৫জুলাই ২০২১ইং ঘুমধুম ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের বেতবুনিয়া এলাকার বাসিন্দা মৃতঃ আনছুর আলীর পুত্র মোহাম্মদ আলমের দীর্ঘদিনের ভোগদখলীয় তৃতীয় শ্রেণীর ৩৫ কড়া জমি ক্রয় করি যা সকলে অবগত আছেন।

ক্রয়কৃত জমিতে আমি একটি  খামার স্থাপন করে বাণিজ্যিকভাবে মুরগী পালন করে আসছি। পাশাপাশি গত মাসের শুরুর দিকে অবশিষ্ট জায়গায় একটি থাকার ঘর নির্মাণ করার উদ্যোগ গ্রহণ করি এবং আমার নির্মাণাধীন ঘরের ফাউন্ডেশন হওয়ার পর আমার জমি লাগোয়া পার্শ্ববর্তী ৪নং ওয়ার্ডের আবদুল করিম এর লোলুপ দৃষ্টি পড়ে আমার ক্রয়কৃত জমির উপর। পরিশেষে এই জমির জন্য আবদুল করিম থানায় অভিযোগ করে এবং ঘুমধুম তদন্ত কেন্দ্রে কর্মরত এসআই মোঃ আল আমিন আপাতত বাড়ি নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার পরামর্শ প্রদান করে। আমি আইনের প্রতি সম্মান জানিয়ে বাড়ি নির্মাণের কাজ স্থগিত রাখি।

সংবাদে আরো উল্লেখ করা হয়েছে আমি নাকি “রাতের আধারে অনুমান ৮০ জন রোহিঙ্গা শ্রমিক দিয়ে পাহাড়ি জায়গার মাটি কেটে,অনুমান ২ শতটি আকাশমনি,আম,জাম সহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কেটে সাবাড় করি” যা সম্পুর্ন বানোয়াট ভিত্তিহীন মুলত আমার বাড়ি নির্মাণে স্থানীয় ৪নং ওয়ার্ডের বেতবুনিয়া এলাকার মোঃ জামাল মিস্ত্রি ও নুরুল আলম মিস্ত্রিকে নিযুক্ত করি। ওখানে আগের কোন গাছপালা ছিলনা।

এইখানে হামলা-মামলার কোন ঘটনাই ঘটেনি। আমি কোন অবৈধ স্থাপনাও নির্মাণ করছিনা। আমি মোঃ আলমের কাছ থেকে ক্রয়কৃত জমিতে বৈধভাবে ঘর নির্মাণ করতেছি। একটি পক্ষ আব্দুল করিম গংদের আমার বিরুদ্ধে উস্কে দিয়ে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করছে যা কারো পক্ষে শোভনীয় নই। আমি উক্ত বানোয়াট,ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে কাগজপত্র যাচাই বাছাই পূর্বক সমস্যাটি সমাধানে উদ্যোগ গ্রহণের অনুরোধ জানাচ্ছি।

  • প্রতিবাদকারী::
  • নুরুল আমিন বাপ্পি
  • পিতাঃ কবির আহমদ
    সাংঃ ঘুমধুম বেতবুনিয়া
    নাইক্ষ্যংছড়ি,বান্দরবান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *