বুধবার, ১২ অগাস্ট ২০২০, ০১:৩৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
উখিয়ার মাছকারিয়াতে সামাজিক বনায়নের জায়গায় ভূমিদস্যুদের স্থাপনা নির্মাণ উখিয়ায় উপজেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট মাটিভর্তি ডাম্পার আটক ১জনের সাজা সিনহা হত্যাঃজড়িত সন্দেহে ৩জন গ্রেপ্তার করোনার প্রথম টিকার অনুমোদন রাশিয়ায়, নিলেন পুতিনকন্যা মহেশখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা(ভারপ্রাপ্ত) হিসেবে পদোন্নতি পেলেন অভিজিৎ কুমার বড়ুয়া ধলঘাটা শরইতলা খাল ঘোনার পানি চলাচলের পথ বন্ধ! ডুবে গেছে রাস্তাঘাট,বসতবাড়ী টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পরকীয়া প্রেমের জেরে স্ত্রীকে জবাই করেছে স্বামী উখিয়ায় র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবা সহ বালুখালী ক্যাম্পের রোহিঙ্গা মোঃ রশিদ আটক মহেশখালীতে ভূমিদস্যুর হামলায় আহত রেঞ্জ কর্মকর্তার মৃত্যু টেকনাফ থানার প্রত্যাহারকৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাশ গ্রেপ্তার মাদক কারবারীদের থাবায় ক্ষতবিক্ষত দৈনিক কক্সবাজার ৭১ অফিস! নিজ, পরিবার ও দেশকে সুরক্ষিত রেখে ঈদ উদযাপন করুন
উখিয়ায় প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে মিথ্যা মামলায় জড়ানোর হুমকি বহু অপকর্মের হুতা রুমু অালমের

উখিয়ায় প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে মিথ্যা মামলায় জড়ানোর হুমকি বহু অপকর্মের হুতা রুমু অালমের

নিজস্ব প্রতিবেদক::

উখিয়ার রাজাপালংস্থ তুতুরবিল গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষকে মিথ্যা মামলায় জড়ানোসহ হুমকি প্রদানের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উখিয়া থানায় দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের তুতুরবিল গ্রামে গত ২ সপ্তাহ ধরে বাড়ির নির্মাণ কাজের জন্য কিছু বালি স্তুপ করে রাখে অাবু বক্কর ছিদ্দিক। তৎমধ্যে গত ২৮ জুন ভাতিজা রুমু অালম ও তার স্ত্রী কাজল অাক্তার কাউকে কিছু না জানিয়ে অাবু বক্করের স্তুপকৃত বালিগুলো নিয়ে যাচ্ছিল এমতাবস্থায় অাবু বক্করের স্ত্রী অাম্বিয়া খাতুন ও ছেলে মোস্তফা বালি নিতে বাঁধা দেওয়ায় মৃতঃ অাব্দুল হাকিমের পুত্র রুমু অালম(৩৫) ও তার স্ত্রী কাজল অাক্তার(২৫), ঠান্ডামিয়ার পুত্র শাহজাহান(৪৫),তারেক(৩০), অাবুল কাশেমের স্ত্রী সাবেকুন্নাহার(৩৮) দা,লাঠি,বল্লাম নিয়ে এসে অাবু বক্করের স্ত্রী অাম্বিয়া খাতুন ও ছেলে মোস্তফাকে কিছু বুঝে উঠার অাগে বেদড়ক মারধর করতে থাকে। ততক্ষণে অাশেপাশের লোকজন এগিয়ে অাসলে এক পর্যায়ে সংঘবদ্ধ রুমু অালম গং অাবু বক্করের স্ত্রীর গলায় থাকা একটি স্বর্ণের হার ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। প্রতক্ষ্যদর্শীরা রুমু অালম গংদের কবল থেকে অাহতদের উদ্ধার করে তাৎক্ষণিক উখিয়া স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে প্রেরণ করে। কর্তব্যরত চিকিৎসকগণ অাহতদের হাসপাতালে ভর্তি দেন। রুমু অালমসহ হামলাকারী নিজেরাই উখিয়ার এক কম্পিউটার দোকান থেকে ভুক্তভোগীরা হামলা করেছে মর্মে ছবি এডিট করে থানায় মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করে।

উখিয়া থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রুমু অালম গংদের সাজানো এজাহারে মঙ্গলবার (৩০ জুন) উখিয়া থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক ও মামলার তদন্তকারী অফিসার নন্দ দুলাল রক্ষিত সহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এলাকাবাসীর জবানবন্দিতে রুমু অালমদের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে জানতে পারেন এবং উল্টো তারা ফেসেঁ যায়।
পরবর্তীতে ৪ জুলাই ২০২০ইং গুরুতর অাহত অাবু বক্কর ছিদ্দিকের পক্ষে তদন্তে যান উখিয়া থানার ওসি তদন্ত নুরুল ইসলাম। রাজাপালং ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নুরুল কবির ও উখিয়া অাবুল কাশেম নুর জাহান চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক হারুনুর রশিদসহ গন্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে প্রতক্ষ্যদর্শী এলাকাবাসীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে রুমু অালম গংদের দোষী সাব্যস্ত করে এবং পরবর্তীতে এমন গর্হিত ঘটনা ঘটালে কঠোর শাস্তির অাওতায় অানার অাশ্বাস প্রদান করে ওসি তদন্ত নুরুল ইসলাম।

চিত্রঃ অাবু বক্কর ছিদ্দিকের বসতভিটায় ভাংচুর চালাচ্ছে রুমু অালম।  

এ বিষয়ে অাবু বক্কর ছিদ্দিক প্রতিবেদককে বলেন রুমু অালম গংরা রমূলত বাস্তব ঘটনাকে আড়াল করার জন্য কাজল আক্তার কে ধর্ষণের চেষ্টা ও মারধর করা হয়েছে মর্মে মিথ্যা অভিযোগ এনে থানায় স্বামী রুমু আলম একটি এজাহার দায়ের করে। এবং সিএসবি-২৪ ডটকমে একটি সাজানো,বানোয়াট ভিডিও প্রকাশ করে। গত ৪ জুলাই উখিয়া থানা ওসি তদন্ত নুরুল ইসলাম মজুমদার ও ৩০ জুন সাব ইন্সপেক্টর নন্দন দুলাল মল্লিক দুই দুইবার সরেজমিন তদন্ত করে ধর্ষণের চেষ্টার কোনো ঘটনার প্রমাণ পায়নি। তা ছাড়া তারা দীর্ঘদিন যাবত অামার পৈতৃক বসতবাড়ির জায়গা দখলের পায়তারা চালিয়ে অাসছিল। ইতিপূর্বে অামার বসতভিটায় অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করে প্রায় অর্ধ লক্ষাধিক টাকার বনজ ও ফলজ গাছ কেটে ফেলে। যা এলাকার সবাই দেখেছে। তখন থেকে রুমু অালম গং অামার পরিবারের বিরুদ্ধে উঠেপড়ে লেগেছে। এলাকায় তাদের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পায়না। যা সরজমিনে বাড়ির অাশেপাশে লোকমারফতে তদন্ত করলে জানা যাবে।

ঘটনার বিষয়ে অভিযুক্ত রুমু অালমের মুঠোফোন বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
এলাকাবাসী জানান রুমু অালম এবং তার অপারাপর ভাইয়েরা অবৈধ ব্যবসার মাধ্যমে কয়েক বছরের ব্যবধানে লাখপতি বনে গেছেন। তারা কাউকে তোয়াক্কা করেনা। কাল টাকা সাদা করতে উখিয়ায় ইনানী ফুড নামে মিষ্টি বিপনি দিয়েছেন শুধুমাত্র লোকচক্ষু ধুলো দেওয়ার জন্য ব্যবসা প্রতিষ্টানটি চালু রেখেছেন। অাইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধিদের নিরপেক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের অনতিবিলম্বে গ্রেপ্তারের অাবেদন জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবার ও এলাকাবাসী।

সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সাইটের কোন লিখা বিনা অনুমতিতে কপি করা আইনত অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে। সিটিবি নিউজ ২০১৮-১৯ সম্পাদক কতৃক সর্বস্বত্ত সংরক্ষিত, নিবন্ধনের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয়ে আবেদিত।
Desing & Developed BY MONTAKIM