শনিবার, ০৪ Jul ২০২০, ০৫:০৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
চরলক্ষ্যার করোনা মোকাবিলা খাতে এক লক্ষ টাকা অনুদান দিলেন এমডি মনিরুল হক কক্সবাজার টুডে ডটকমে প্রকাশিত সংবাদের জোর প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা মাতারবাড়িতে জলবদ্ধতা নিরসনে ২০ ফুট ড্রেনের ব্যাবস্থা করলেন এস.এম.আবু হাইদার আবারো দীর্ঘ বিরোধ নিষ্পত্তি করে একের পর এক আস্থা অর্জন করছেন চেয়ারম্যান আবছার উখিয়ায় বিজিবি’র অভিযানে ৬০ হাজার পিস ইয়াবাসহ  রোহিঙ্গা পাচারকারী আটক ঘুমধুমের নুরুজ্জামান চকরিয়ায় মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদে ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে ৮০ লাখ টাকার বাজেট প্রস্তাব পেশ উখিয়া বালুখালীর ২ ভাই আবারো ইয়াবা বানিজ্যে ! ২ বাংলাদেশিকে নির্যাতনের পর রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে গেল বিএসএফ ভারতের সঙ্গে উত্তেজনায় পাকিস্তান সেনাদের জন্য হাসপাতাল ও রক্ত সংরক্ষণের চিঠি উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাব এর নতুন কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত টেকনাফে ২০ হাজার ইয়াবাসহ দুই উপজাতি আটক
আবারো দীর্ঘ বিরোধ নিষ্পত্তি করে একের পর এক আস্থা অর্জন করছেন চেয়ারম্যান আবছার

আবারো দীর্ঘ বিরোধ নিষ্পত্তি করে একের পর এক আস্থা অর্জন করছেন চেয়ারম্যান আবছার

মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কু::

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় ৫টি ইউনিয়নের মধ্যে সদর ইউনিয়নে অধিকাংশ এলাকায় বসবাসকারী মানুষের মধ্যে সীমানা বিরোধের জেরে মামলা-হামলার স্বীকার হয়েছে অনেক মানুষ। প্রতি মাসে থানা/কোর্টে মামলা করে সর্বশান্ত হয়েছেন অনেক পরিবার।

গত ১ মাসে বেশ কিছু বিরোধ নিষ্পত্তি করে একের পর এক মানুষের আস্থা অর্জন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে যাচ্ছেন নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়ন পরিষদের তরুন চেয়ারম্যান নুরুল আবছার ইমন।

এলাকার অনেকের মতে, বিগত দিনে জনপ্রতিনিধিরা এই সমস্যাকে প্রধান্য দিলে নাইক্ষ্যংছড়িতে মামলা-হামলার ঘটনা কমে যেত।
শুক্রবার (২৭) মধ্যম বিছামারা সীমানা বিরোধের জেরে আহত হাসপাতালের কর্মচারী সোহাগের করা মামলার মধ্যস্থতা করে উভয় পক্ষের সীমানা নির্ধারণ করে দেন তিনি।

এলাকাবাসী জনান, ১৯৮৬ সাল থেকে চলে আসা জি/১৬৬ হোল্ডিং এ বসবাসরত দিলরুবা ও শামসুল আলম (মিস্ত্রী) এর মধ্যে সীমানার বিরোধকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মচারী দিলরুবা সোলতানার স্বামী নাছের উল্লাহ খান সোহাগ (৩২)।

এই ঘটনার জের ধরে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় অভিযোগ পর্যন্ত গড়ালেও এলাকাবাসীদের সাথে নিয়ে দফায় দফায় চেষ্টা করে দুই পক্ষকে এক করে ৩৬ বছরের বিরোধীয় এ সীমানা নির্ধারণ করলেন চেয়ারম্যান আবছার।

সম্প্রতি করা মামলার বাদী নাছের উল্লাহ খান সোহাগ জানান,তার স্ত্রীর পৈত্রিক সম্পত্তি ও শামসুল আলম (মিস্ত্রি) এর সাথে আমার শশুরের আমল থেকে চলে আসা সীমানার বিরোধ নিষ্পত্তি হওয়ায় আমরা উভয় পক্ষ সন্তুষ্ট।
ভুক্তভোগী দিলরুবা সোলতানা, স্থানীয় সোলতান আহমেদ ও সাবেক এম ইউপি মীর আহমদ সহ অনেকে জানান, দীর্ঘদিন ধরে এ সীমানা বিরোধকে কেন্দ্র করে নাইক্ষ্যংছড়ির বিভিন্ন জায়গায় মামলা-হামলার ঘটনা ঘটেছে।

চেয়ারম্যান নুরুল আবছার এগিয়ে এসে বিভিন্ন জায়গায় এসব সমস্যা সামধান করায় চেয়ারম্যান কে ধন্যবাদ জানান। এই বিষয়ে সদর ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আবছার জানান, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে বেশ কয়েকবার চেষ্টা করে উভয় পক্ষের সহযোগীতায় তাদের পরস্পরের এ বিরোধ নিষ্পত্তি করতে সক্ষম হয়েছি।

আমার ইউনিয়নের প্রধান সমস্যা গ্রাম্য যোগাযোগ ও সীমানা বিরোধ। এলাকাবাসী যাতে মামলা-হামলা থেকে বাচঁতে পারে তার জন্য আমি দিনরাত চেষ্টা করে এসব সমস্যার সমাধানের চেষ্ঠা করছি। ভবিষ্যতে এসব সমস্যার সমাধান হলে এলাকাবাসী মামলা হামলা থেকে রেহাই পাবে।

পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতিও উন্নতি হবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন। অপরদিকে মন্ত্রী মহোদয়ের হাত ধরে তিনি ধারাবাহিক উন্নয়নকে এগিয়ে নিয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নকে মডেল ইউনিয়ন হিসেবে পরিচিতি লাভ করা এটিই আমার কাম্য।

সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই সাইটের কোন লিখা বিনা অনুমতিতে কপি করা আইনত অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে। সিটিবি নিউজ ২০১৮-১৯ সম্পাদক কতৃক সর্বস্বত্ত সংরক্ষিত, নিবন্ধনের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয়ে আবেদিত।
Desing & Developed BY MONTAKIM